post

ভূস্বর্গের পথে – লাদাখ কাশ্মীর

স্বর্গের পথে যাত্রা। স্বপ্ন হল সত্যি। প্রায় ২ বছর ধরে অনেক বার প্লান করে আবার পিছিয়ে এসে অবশেষে এই সেপ্টেম্বরে এসে সফল হলাম। 

পুরো প্লানঃ ঢাকা – কোলকাতা – দিল্লী – মানালী – জিসপা – লেহ – নুব্রা – ডিস্কিত – হুন্ডার – প্যাংগন – লেহ – কারগীল – শ্রীনগর – পেহেলগাম – জম্মু – দিল্লী – কোলকাতা – ঢাকা।

পুরো এলবামঃ
ফেসবুকঃ www.facebook.com/media/set/?set=a.10214330488837409&type=1&l=7fea88e8aa
ফ্লিকারঃ www.flickr.com/photos/162644243@N06/albums/72157703306658211

যারা লাদাখ ভ্রমণের পরিকল্পনা করছেন, তাদের জন্য সতর্কতামূলক পোস্ট এটি।

১। মানালী থেকে লেহ হয়ে শ্রীনগর পর্যন্ত হাইওয়েতে কয়েকটা উঁচু পাস পরে, যেগুলোর উচ্চতা অনেক বেশি। লেহ শহরের উচ্চতাও অনেক বেশি। অক্সিজেন স্বল্পতা এবং তুলনামূলক কম বায়ুচাপের কারণে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। যাবার আগে অবশ্যই নিজের স্বাস্থ্য চেক করিয়ে নিবেন। বেশি বয়স হলে এবং হার্টের সমস্যা থাকলে এই রুটে ভ্রমণ না করাই শ্রেয়।

২। পুরো রুটটি কভার করতে হলে শ্রীনগর থেকে শুরু করাই ভাল। শ্রীনগর থেকে লেহ আস্তে আস্তে উপড়ে উঠে, যার কারণে শরীর এডজাস্ট করার মত পর্যাপ্ত সময় পায়। মানালী থেকে লেহ হটাত করে অনেক উপড়ে উঠে। মানালী থেকে রোটাং-ই অল্প সময়ে ৫-৬হাজার ফুট উঁচুতে। এই রুটে তাই বেশি অসুস্থ হয় মানুষ।

৩। মানালী – লেহ এবং লেহ – শ্রীনগর এক দিনে ট্রাভেল না করাই ভাল। আমরা মানালি – লেহ রুটে জিসপাতে আর লেহ – শ্রীনগর রুটে কারগিলে নাইট স্টে করেছিলাম।

৪। লেহ তে পৌঁছে একদিন বিশ্রাম অবশ্যই নিবেন, সময় থাকলে ২ দিন। যারা দিল্লী থেকে ফ্লাই করে লেহ তে যাবেন, তাড়া ২ দিন রেস্ট নিবেন লেহতে। এতে AMS এটাক হবার চান্স কমে যায়।

Read More